Computer Networking Basics in Bangla Part-6: IP Address কি?

What is IP Address

What is IP Address

IP Address এর পূর্নরুপ Internet Protocol Address। ইন্টারনেট বা নেটওয়ার্কে যুক্ত প্রতিটি কম্পিউটার বা ডিভাইস বা সার্ভার কে একক ভাবে চিহ্নিত করার জন্য যে একটি লজিক্যাল অ্যাড্রেস ব্যবহার করা হয় তাকে বলা হয় ইন্টারনেট প্রোটকল অ্যাড্রেস বা আইপি অ্যাড্রেস।

IP Address

IP Address

প্রতিটি ডিভাইস এর একটি করে ফিজিক্যাল অ্যাড্রেস থাকে যাকে বলা হয় ম্যাক অ্যাড্রেস । এটি ঐ ডিভাইস তৈরিকারক কোম্পানি নির্ধারন করে দেয়। এছাড়াও ইন্টানেটে যুক্ত হওয়ার জন্য প্রতিটি ডিভাইস এর আর একটি লজিক্যল অ্যাড্রেস এর প্রয়োজন হয়। এই লজিক্যল অ্যাড্রেসটিকে কলা হয় আইপি অ্যাড্রেস।

আইপি ভার্সন

ইন্টারনেট প্রটোকলের দুটি ভার্সন ব্যবহৃত হয় : আইপি ভার্সন ৪ (IPV4) এবং আইপি ভার্সন ৬ (IPV6)। ভার্সন দুটি পৃথক পৃথক ভাবে আইপি অ্যাড্রেস প্রকাশ করে। তবে আইপি ভার্সন ৪ ব্যাপক প্রচলনের কারণে সাধারণত আইপি অ্যাড্রেস বলতে ভার্সন ৪ এর প্রকাশকে ধরে নেয়া হয়।

IPV4:

IPV4 হলো Internet Protocol Version-4। বর্তমানে IPV4 বহুল ব্যবহৃত আইপি অ্যাড্রেস। IPV4 এ প্রতিটি আইপি অ্যাড্রেসকে প্রকাশের জন্য মোট চারটি অকটেট (৮ বিটের বাইনারি) অর্থাৎ মোট ৩২ বিট প্রয়োজন । IPV4 দ্বারা মোট ৪২৯৪৪৯৬২৯৬ (২৩২) সংখ্যক অদ্বিতীয় অ্যাড্রেস তৈরি করা যায়। IPV4 এর অ্যাড্রেস সাধারণত Decimal ফরম্যাটে লেখা হয়। যা দিয়ে আমরা ৪২৯৪৯৬৭২৯৪টি হোস্টকে চিন্হিত করতে পারব। প্রতিটি ভাগের ডেসিমেল সংখ্যাটি ০ থেকে ২৫৫ এর মধ্যের কোন একটি সংখ্যা হয়। আইপিভি৪ এ কিছু অ্যাড্রেসকে বিশেষ প্রয়োজনে আলাদা করে রাখা হয়েছে যেমন : প্রাইভেট নেটওয়ার্ক(~ ১৮ মিলিয়ন অ্যাড্রেস ) অথবা মাল্টিকাস্ট অ্যাড্রেস (~২৭০ মিলিয়ন)।

IP Format

IP Format

প্রতিটি অকটেট ডট (.) দ্বারা পৃথক করা হয়। যেমন : ১৭২.১৬.১০.৪ অ্যাড্রেসের প্রতিটি নম্বর/অংশ ৮ বিটের একটি গ্রুপকে প্রকাশ করে। তবে অনেক ক্ষেত্রে আইপিভি ৪ অ্যাড্রেসগুলোকে ডট-ডেসিমেল এর পরিবর্তে হেক্সাডেসিমেল,অক্টাল অথবা বাইনারী নম্বর দিয়ে প্রকাশ করা হয়।

IP Version 4

IP Version 4

ক্লাস অনুশারে আইপি ভার্সন ৪ (IPV4) অ্যাড্রেসকে ৫ ভাগে ভাগ করা হয় । এবং প্রত্যেক ক্লাস এর একটি রেঞ্জ রয়েছে। যথা:-

•Class A ( ক্লাস এ )
•Class B ( ক্লাস বি )
•Class C ( ক্লাস সি )
•Class D ( ক্লাস ডি )
•Class E ( ক্লাস ই )

Class A ( ক্লাস এ ): আইপি এড্রেস চারটি অকটেটের মধ্যে প্রথম অকটেট অ্যাড্রেসের ক্লাস নির্ধারণ করা থাকে। যদি প্রথম অকটেটের সর্ববামের বিট অর্থাৎ মোস্ট সিগনিফিকেন্ট বিট (MSB-Most Significant Bit) শূন্য (০) হয়, তাহলে বুঝতে হবে এটি ক্লাস ‘এ ‘ শ্রেণীভুক্ত । এক্ষেত্রে অন্যান্য ভিট এর অবস্থান বা মান যাই হোক না কেন, ক্লাস ‘এ’ আইপি অ্যাড্রেস অ্যাড্রেসের প্রথম অকটেটের সর্বনিম্ন মান ০ এবং সর্বোচ্চ মান ১২৭ হবে ।

IPV Class A

IPV Class A

ধরুন আপনাকে একটা আইপি এড্রেস দেওয়া হল ১০.৪৩.৩৪.১৭৮। দেখা যাচ্ছে এখানে প্রথম অকটেটের মান ১২৮ এর কম তাই এটি একটি ক্লাস ‘এ’ আইপি অ্যাড্রেস । এক্ষেত্রে আপনি যদি ক্লাস এ আইপি এড্রেস এর জন্য ডিফল্ট সাবনেট মাস্ক (Subnet Mask) ২৫৫.০.০.০ ব্যবহার করেন, তাহলে এই আইপি এড্রেস শুধু নেটওয়ার্ক অংশের এড্রেস হবে ১০.০.০.০ এবং হোস্ট অংশের এড্রেস হবে ০.৪৩.৩৪.১৭৮।

IPV Class A Explanation

IPV Class A Explanation

Class B ( ক্লাস বি ): যদি আইপি অ্যাড্রেস এর প্রথম অকটেটের প্রথম দু’টি মোস্ট সিগনিফিকেন্ট বিট (MSB-Most Significant Bit) ১ ও ০ হয়, তাহলে বুঝতে হবে এটি ক্লাস-বি এর আইপি অ্যাড্রেস। ক্লাস-বি আইপি অ্যাড্রেস প্রথম দুটি অকটেট ব্যবহার করে থাকে নেটওয়ার্ক অংশের এবং শেষ দুটো ব্যবহার করে হোস্ট অংশের অ্যাড্রেসের জন্য । ক্লাস-বি আইপি অ্যাড্রেস এর সীমা ১২৮.০.০.০ থেকে ১৯১.২৫৫.০.০ পর্যন্ত প্রথম অকটেটের মান

IPV Class B

IPV Class B

যেমন ধরুন, ১৩০.৩৪.২৭.৬৬ একটি ক্লাস-বি এর ডিফল্ট সাবনেট মাস্ক হবে ২৫৫.২৫৫.০.০। এক্ষেত্রে নেটওয়ার্ক অংশের জন্য অ্যাড্রেস হবে ১৩০.৩৪.০.০ এবং হোস্ট অংশে যে অ্যাড্রেস ব্যবহার করা হবে তা হলো ০.০.২৭.৬৯। ক্লাসে ‘এ’এর বেলায় যে রূপ হিসাব করা হয়েছে, সেভাবে হিসাব করলে দেখা যাবে ক্লাস-বি’র জন্য নেটওয়ার্ক অ্যাড্রেসের সংখ্যা হয়েছে ১৬৩৮৪টি এবং প্রতি নেটওয়ার্কের হোস্ট সংখ্যা হচ্ছে ২২=৬৫৫৩৬টি ।

IPV Class B Explanation

IPV Class B Explanation

Class C ( ক্লাস সি ): ক্লাস-সি আইপি অ্যাড্রেস এর বেলায় প্রথম অকটেটের প্রথম তিনটি মোস্ট সিগনিফিকেন্ট বিট (MSB-Most Significant Bit) যথাক্রমে ১.১ ও ০ মানে সেট করা থাকে। ক্লাস-সি এর প্রথম তিনটি অকটেট নেটওয়ার্ক অ্যাড্রেস এবং শেষের অকটেট হোস্ট অ্যাড্রেসের জন্য ব্যবহার করে থাকে। ক্লাস-সি আইপি অ্যাড্রেস শুরু হয় ১৯২.০.০.০ থেকে এবং এটি শেষ হয় ২২৩.২৫৫.২৫৫.২৫৫-তে গিয়ে। প্রথম প্রথম অকটেটের সর্বনিম্ন মান ১৯২ সর্বোচ্চ ২২৩। এর হিসাব নির্ণয় করা হয় নিম্নরূপভাবে-

IPV Class C

IPV Class C

IPV Class C Explanation

IPV Class C Explanation

IPV6: IPV6 হলো Internet Protocol Version-6। IPV6 এ প্রতিটি আইপি অ্যাড্রেসকে প্রকাশের জন্য মোট আটটি ভাগ থাকে এবং প্রতি ভাগে ১৬ বিট অর্থাৎ মোট ১২৮ বিট প্রয়োজন। প্রতিটি ভাগ ডট (.) দ্বারা পৃথক করা হয়। IPV6 দ্বারা মোট ২১২৮ সংখ্যক অদ্বিতীয় অ্যাড্রেস তৈরি করা যায়। IPV6 এর অ্যাড্রেস সাধারণত Hexadecimal ফরম্যাটে লেখা হয়।

Ahad Islam

Leave a Reply